Reading Time: 3 minutes

ঘরের ইন্টেরিয়র বদলে ফেলতে বেছে নিতে পারেন  এখনকার সময়ের জনপ্রিয় কয়েকটি ইন্টেরিয়র স্টাইল। স্নিগ্ধ এবং আধুনিক স্টাইলগুলো অগোচরে বলে উঠবে আপনার মনেরই কথা। একেকটি ইন্টেরিয়র স্টাইলে রয়েছে একেক ভঙ্গি। কোথাও রংধনুর মত রঙিন তো কোথাও ধূসর সাদামাটা। কেউ সময়ের সাথে এগিয়ে যেতে বেছে নেয় হাল ফ্যাশনের কোন স্টাইল। কিন্তু এমনও তো অনেকে আছেন যারা কিনা একটু পুরনো সুভাষে বেছে থাকতে বেশ ভালোবাসেন। তাদের জন্য ভিনটেজ ডেকোর স্টাইলটা চমৎকার হবে। আধুনিক সময়ের সমস্ত সুযোগ সুবিধাগুলো মাথায় রেখেই এই স্টাইলটি ডিজাইন করা হয়েছে। ইন্টেরিয়র ডিজাইনে ভিনটেজ ডেকোর স্টাইল কীভাবে ব্যবহার করবেন এবং ঘর তখন দেখতে কেমন দেখাবে সেটা জানতে শুরু করা যাক। 

টাইপ রাইটার
আধুনিক সময়ের সমস্ত সুযোগ সুবিধাগুলো মাথায় রেখেই এই স্টাইলটি ডিজাইন করা হয়েছে

ভিনটেজ ডিজাইন স্টাইল কী?

ভিনটেজ স্টাইলটি এমন এক স্টাইল যেখানে আপনি ক্লাসিক্যাল এবং কনটেম্পোরারি স্টাইলের উপাদান খুঁজে পাবেন। ভিনটেজ স্টাইলটিতে ফেলে আসা দিনের একটা আভাষ রয়েছে। যখন ইন্টেরিয়র ডিজাইন নিয়ে কথা বলা হয় তখন ভিনটেজ স্টাইলে বিংশ শতাব্দীর একটা আমেজে খুঁজে পাওয়া যাবে। এই স্টাইলের বেশিরভাগ উপকরণই নেওয়া হয়েছে বিংশ শতাব্দী থেকে। ডেকো আর্ট, মিড সেঞ্চুরি মডার্ন এবং স্টিমপাঙ্ক এই সমস্ত স্টাইলগুলো ভিনটেজ ইন্টেরিয়র ডিজাইনের ভেতরেই পড়ছে। ভিনটেজ ইন্টেরিয়র স্টাইলটা হচ্ছে আধুনিক স্পেসে সেই আগের সময়কার পরিবেশ তৈরি করার একটি উপযুক্ত উপায় বা দিকনির্দেশনা। এই ডেকোর স্টাইলটি আপনাকে একটু একটু করে নিয়ে যাবে সে পুরনো সময়ে আর আপনি হয়ে উঠবেন নস্টালজিয়া। 

ভিনটেজ ডিজাইন স্টাইলের ইতিকথা 

একবিংশ শতাব্দীর শুরুর দিককার কথা যখন মিনিমালিস্ট স্টাইল কেবলই তার দ্যুতি ছড়াচ্ছে। তখন ডিজিটাল বিপ্লবও হচ্ছিল, বেশ ভালোই যাচ্ছিল সবকিছু। সবকিছুই ছিল বেশ স্লিক এবং ফ্রেশ। কিন্তু অনেকের কাছেই এই স্টাইল ছিল আর্টিফিশিয়াল। অনেকেই আছেন যারা পেছনের সবকিছু ভালোবাসে। এমনকি হোম ইন্টেরিয়রেও সেই ছাপ রাখতে চান। তাদের জন্য মূলত ভিনটেজ স্টাইলটা সবার নজরে আসে। ভিনটেজ অনেক অনুষঙ্গের চাহিদা তখন বাড়তে দেখা যায়। আস্তে আস্তে মানুষ এই ভিনটেজ স্টাইলের মায়ায় পরতে শুরু করে। তখনই ভিনটেজ যেকোন কিছুরই দাম আকাশচুম্বী হতে শুরু করে। এমনকি এখনও  ইন্টেরিয়র ডিজাইনে ভিনটেজ ডেকোর স্টাইল অনেক জায়গায় বেশ চমৎকারভাবে ব্যবহার হতে দেখা যায়। 

ভিনটেজ ইন্টেরিয়র স্টাইলের মূল মন্ত্র

ভিনটেজ ডেকোর
এই ডেকোর স্টাইলটি আপনাকে একটু একটু করে নিয়ে যাবে সে পুরনো সময়ে আর আপনি হয়ে উঠবেন নস্টালজিয়া

একটি জিনিসই যা বেশিরভাগ স্টাইল থেকে ভিনটেজ ডিজাইন স্টাইলকে আলাদা করে সেটি হচ্ছে এই স্টাইলের কোন প্রতিবন্ধকতা না থাকা। অর্থাৎ, এই স্টাইলের সাথে আপনি অন্য যেকোন স্টাইলের অনুষঙ্গ মিলিয়ে ব্যবহার করতে পারবেন। এমন কোন প্রতিবন্ধকতা নেই যে আপনি ভিনটেজের সাথে অন্যকিছু ব্যবহার করতে পারবেন না। বরং, মডার্ন ডিজাইন স্টাইলের মত করে সাদা দেয়ালের বিপরীতে ড্র্যাব সোফা ব্যবহার করতে পারছেন। এই স্টাইলটা এমনই যেখানে নতুন এবং পুরনো একই সাথে একই থালায় রেখে উপস্থাপন করা হয়। চলুন তাহলে জানা যাক কীভাবে এই স্টাইলের সাহায্যে নিজের বাড়িটি সাজানো যায়।

যেভাবে ভিনটেজ ইন্টেরিয়র স্টাইলে ঘর সাজাবেন

আসবাব – ভিনটেজ ইন্টেরিয়র স্টাইলের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ উপাদানগুলোর মধ্যে একটি হল আসবাব। এই স্টাইলের সবচেয়ে আকর্ষণীয় দিকই হচ্ছে এই আসবাব। আধুনিক সময়ের স্টাইল থেকে এই আসবাবগুলোই ভিনটেজ স্টাইলকে আলাদা করে তোলে। এই স্টাইলকে সুন্দরভাবে উপস্থাপন করতে কাঠকে ব্যবহার করা যেতে পারে। কাঠের গায়ে গাঢ় রঙের প্রলেপ ব্যবহার করা যেতে পারে। গাঢ় রঙের কাউচ সোফার সাথে এই স্টাইলটি আরও চমৎকারভাবে ফুটে উঠবে।   

দেয়াল – ভিনটেজ ডেকোর স্টাইলের আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ হল ওয়ালপেপার। ক্লাসিক ফ্লোরাল প্রিন্ট সহ বিভিন্ন ওয়ালপেপার এই ডেকোরকে বেশ সুন্দর করে কমপ্লিমেন্ট করতে পারে। এমনকি ঘরের ভেতর চমৎকার এক আবহও তৈরি করতে পারে। ভিনটেজ ভাইভকে ঘরের ভেতর ফুটিয়ে তুলতে দেয়ালে ওয়ালপেপার ব্যবহার করা যেতে পারে। জ্যামিতিক প্যাটার্নগুলোও কিন্তু ব্যবহার করতে পারেন যদিও, রেট্রো ডেকোর কিংবা মিড সেঞ্চুরি মডার্নেও এই পাটার্ন ব্যবহার হতে দেখা গিয়েছে। এবং ঠিক একইভাবে এই প্যাটার্নটি ভিনটেজ ডেকোরেও সহজেই মানিয়ে গেছে। 

লাইটিং – এই ডেকোর স্টাইলে লাইটিং বিশাল একটি ভূমিকা পালন করে। হলুদ আলোর বড় ল্যাম্পগুলো আপনার ঘরে নিখুঁতভাবে স্বাচ্ছন্দ্যময় একটি পরিবেশ তৈরি করতে পারবে। চাইলে ঝারবাতিও ব্যবহার করে সুন্দর পরিবেশ তৈরি করা যেতে পারে। 

রং- গাঢ় নিউট্রাল রংগুলো ভিনটেজ স্টাইল ডেকোরের জন্য বেশ কার্যকরী। দেয়ালের ক্ষেত্রে গাঢ় পেস্ট্রাল রং গুলো সহজেই মানিয়ে যায়। চল্লিশ বা পঞ্চাশ দশকের লুক আনতে কাঠের আসবাবও ব্যবহার করা যেতে পারে। আপনি চাইলে আরও বেশ কিছু রং ব্যবহার করতে পারেন ষাট দশকের অন্দরসজ্জা পেতে।  

এই ছিল ইন্টেরিয়র ডিজাইনে ভিনটেজ ডেকোর স্টাইল । পুরনো দিনকে ফিরে পেতে বেশ চমৎকার এই ডেকোর স্টাইলটা। কেমন লাগেছে জানাতে কমেন্ট করুন।

Write A Comment