Category

ট্রেন্ডস

Category

Reading Time: 3 minutes আমরা মানুষ , স্বভাবতই আমরা সবার মাঝে থাকতে এবং বেড়ে উঠতে পছন্দ করি।  আমরা সামাজিক জীব। কেউ কেউ বলেন এটা নাকি আমাদের জিনেই আছে। আশ্চর্য হলেও সত্যি যে, আমরা যখন কোন গ্রুপে কাজ করার সময়েই আমাদের সেরাবের হয়ে আসে! তাই এই দূর্যোগের সময়ে একটা দীর্ঘ সময় লোকালয় কিংবা সমাজ থেকে দূরে থাকার কারণে, আমাদের মানসিক স্বাস্থ্যের উপর এর বড় একটা প্রভাব পড়বে। যেটা আমাদের মানসিক স্বাস্থ্য এবং কর্মক্ষমতা দুটোর জন্যই ক্ষতিকর। দীর্ঘ সময়ের জন্য কোয়ারেন্টাইন হলে আপনি কমিউনিটি কিংবা কর্মক্ষেত্র থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ছেন। যার কারণে আপনার মানসিক স্বাস্থ্যের উপর পড়তে থাকে নানা প্রভাব। মানসিক চাপ, উদ্বেগ এবং বিভ্রান্তির মত বিষয়গুলো দেখা দিতে শুরু করে। প্রোডাকটিভিটি কমানো কিংবা কাজের ক্ষতির পাশাপাশি এগুলো আপনার শারীরিক স্বাস্থ্যের জন্যও অনেক ক্ষতিকর। এজন্য মানসিক স্বাস্থ্যের যত্ন নেওয়া অতীব গুরুত্বপূর্ণ। সুতরাং, চলুন জানা যাক দীর্ঘ সময়ের কোয়ারেন্টাইন এ যেভাবে প্রোডাকটিভিটির জন্য মানসিক সুস্থতা বজায় রাখবেন!    মানসিক চাপ  যখন হঠাৎ করে কোন কিছুর প্রয়োজন হয় এবং…

Reading Time: 3 minutes স্বাধীনতা মানে আমার কাছে “স্ব-অধীনতা”! অর্থাৎ নিজের মত করে নিজেকে নিয়ে জীবনের সবটুকু উপভোগ করে নেওয়া। মহাত্বা গান্ধী বলেছেন, “ভুল করার স্বাধীনতা না থাকলে সেই স্বাধীনতার কোন মূল্য নাই”।  এমনটা আমি নিজেও মনে করি, এই জীবনে কিছু করার স্বাধীনতা পেলেই কিন্তু হিসেব চুকে গেল না। বরং, সবকিছু বুঝে পাওয়ার ভেতর দিয়ে যদি কোন ভুল হয়েও যায় সেই ভুলটা করার সাহস কিংবা সুযোগ, এক সাথে দুটো পাওয়াই আমার কাছে স্বাধীনতা।  বিভিন্ন ক্ষেত্রে স্বাধীনতা ভিন্ন এক রূপে ধরা দিয়েছে। কিভাবে? জানতে পড়তে থাকুন। ব্যক্তি স্বাধীনতা  স্বাধীনতা আমাদের ব্যক্তিসত্তার সাথে ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে আছে। আমাদের ব্যক্তিজীবনে স্বাধীনতা কিভাবে ফুটে উঠেছে এবং এর কী রকম ব্যবহার করছি আমরা সবকিছু একটু ভেবে দেখার সময় এখন। একজন ব্যক্তি হিসেবে আপনি কেমন হতে চাচ্ছেন সেই সুযোগটা কিন্তু এই দেশে আপনি শতভাগ পেয়ে যাচ্ছেন। একজন মেয়ে হয়েও যখন আপনি দেশের পুরুষকেন্দ্রিক কাজগুলো করার সুযোগ পাচ্ছেন আবার অন্যদিকে ছেলে হয়েও পাচ্ছেন নারীকেন্দ্রিক কাজগুলো করার সম্পূর্ণ সুযোগ। অর্থাৎ, একজন স্বয়ংসম্পূর্ণ ব্যক্তি…

Reading Time: 4 minutes সকলের প্রিয় এই ধানমন্ডি এলাকা। আবাসিক সকল সুযোগ-সুবিধা  নিয়ে গড়ে ওঠা এই এলাকা সবার কাছে স্পেশাল। স্কুল, কলেজ এবং ইউনিভার্সিটির পাশাপাশি আছে বেশ কিছু অফিসও। বাণিজ্যিক এলাকা হিসেবেও সকলের পছন্দের তালিকায় আছে এই এলাকা। পুরো শহর জুড়ে এই এলাকার খ্যাতি অনেক। বিনোদনমূলক স্থান থেকে শুরু করে সাহিত্য চর্চা, এখানের সবকিছুই বেশ জনপ্রিয়। এছাড়া, যে কথাটি না বললেই নয়, সেটি হল ধানমন্ডির খাবার। বিখ্যাত সব রেস্তোরার মেলা এই ধানমন্ডি। এমন একটি এলাকা যেখানে কংক্রিটের বিল্ডিং থাকলেও অভাব নেই প্রাকৃতিক স্থানের। চলুন এই এলাকায় আরও কী কী আছে সে সম্বন্ধে জানি।    খাবার  নামীদামী সব রেস্তোরা আছে এই এলাকায়। সব রকমের খাবারের জন্য এদিকটা বেশ জনপ্রিয়। বাঙালি খাবার হোক কিংবা ফার্স্ট ফুড সবকিছুই এখানে সেরা। এটি এমন এক এলাকা যেখানে এসে আপনি কখনোই শূন্য হাতে ফিরে যাবেন না। ধানমন্ডির সাতমসজিদ রোড থেকে শুরু করে জিগাতলা অব্দি। মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে আছে অসংখ্য বহুতল ভবন। যে ভবনের একেকটি ফ্লোরে জায়গা করে নিয়েছে মজার খাবারের…

Reading Time: 5 minutes খুব বেশি আগের কথা নয় এইতো সেদিনও ঢাকা শহরটা ছিল বেশ ছোট আর নির্মলতায় পরিপূর্ণ। সুবিশাল সবুজে ঘেরা রাস্তাঘাটগুলো ছিল অবাক করা। আজকের মতই কিছুই ছিল না তখন। দেশের রাজধানী হওয়ার কারণে অধিকাংশ অর্থনৈতিক কর্মকান্ড এখানেই হয়। নিঃসন্দেহে বলা যায়, ঢাকা বাংলাদেশের হৃদয় কিংবা মধ্যমণি। রিয়েল এস্টেট সেক্টর সেই একই সাথে বড় হচ্ছে যার কারণে ঢাকার সীমানা বেড়ে গেছে আরও বহুগুণে।   আজকের এই ঢাকার প্রাথমিক পরিকল্পনাটা কিন্তু এমন ছিল না। চারদিক খোলামেলা এবং সুবুজে ঘেরা একটি আবেশ থাকবে, যেখানে মানুষ প্রকৃতির মাঝে একটু শান্তির প্রশ্বাস নিবে। বেড়ে ওঠা জনসংখ্যা এবং বাণিজ্যিক কেন্দ্রগুলো একটু একটু করে আবাসিক ঢাকার পরিকল্পনাটি বদলে দিয়েছে। আবাসিক পরিকল্পনাতেও এসেছে নানান পরিবর্তন। খেলার মাঠ এবং পার্কগুলো আর তেমন দেখা যায় না। পার্ক আর খেলার মাঠের সংরক্ষিত জায়গায় গড়ে উঠছে বহুতল ভবন কিংবা বাণিজ্যিক কোন ভবন। এমনকি বাড়ির সামনের বারান্দাগুলো এখন আর তেমনভাবে নেই। অসংখ্য আকাশচুম্বী বহুতল ভবনের ভীড়ে এমন খোলামেলা বাড়িগুলো হারিয়ে যাচ্ছে। একটি দেয়ালের সাথে ঘেঁষে…

Reading Time: 4 minutes তারার বাড়ি সিজন ১ এর বিপুল জনপ্রিয়তার পর দর্শক হৃদয় অপেক্ষা করে যাচ্ছিল, বিপ্রপার্টি তারার বাড়ি সিজন- ২ এর। সবার মধ্যে বিরাজ করছিল টান টান উত্তেজনা। কারা থাকবেন এবারের নতুন সিজনে। গত সিজন দর্শক হৃদয়ে ফেলেছে ভালো লাগার গভীর ছাপ! সিজন ১ এর তারকা মেলা দেখে দর্শক হয়েছেন আরও উদগ্রীব। নিজের ঘরে বসে সেলিব্রেটিদের বাড়িতে ঢুঁ মেরে তাদের ঘর ও জীবনের গল্প জানতে কার না ভালো লাগবে! দেশের সেরা সেরা সব সেলিব্রেটিদের বাড়ির ভেতরটা কেমন? এমন প্রশ্ন অনেকের মনেই জাগে! কিন্তু, উত্তর খুঁজে পাওয়া গেছে শুধু বিপ্রপার্টি তারার বাড়ি তে। সিজন ১ এ জায়গা করে নিয়েছে দেশ সেরা সব তারকারা। আর সিজন ২ এ ইতিমধ্যে পর্ব হয়েছে মোটে ৪ টি। কিন্তু এই ৪ টি এপিসোডই ইতিমধ্যে দর্শক হৃদয়ে জায়গা করে নিয়েছে এবং বাড়িয়ে তুলেছে তাদের আগ্রহ। প্রতি সপ্তাহেই তারা অপেক্ষা করে থাকেন এবারের পর্বে কাকে দেখবেন, কোন তারকার বাড়িতে যাবেন! আর দেরি না করে চলুন শুরু করি, এ দেশের প্রখ্যাত…

Reading Time: 5 minutes ৮ মার্চ, আন্তর্জাতিক নারী দিবস ! এবারের নারী দিবসের থিম হতে যাচ্ছে, “আই এম জেনারেশন ইক্যুয়ালিটি”- নারীর অধিকার রক্ষা ও সমতায়নে”। জাতিসংঘ নারীদের জন্য ক্যাম্পেইন করতে যাচ্ছে, #ইচ-ফর-ইক্যুয়াল’(#EachforEqual) স্লোগানে। তাদের ক্যাম্পেইন হচ্ছে “ইউএন ওমেন’স নিউ মাল্টিজেনারেশন ইক্যুয়ালিটি”। এই ক্যাম্পেইনটি জেনারেশন ইক্যুয়ালিটি হিসেবে বিশ্বব্যাপী পরিচিত। “বেইজিং ডিক্লেয়ারেশন অ্যান্ড প্ল্যাটফর্ম ফর অ্যাকশন (বিডিপিএ)” এর ২৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে  “জেনারেশন ইক্যুয়ালিটি” ক্যাম্পেইনটি এগিয়ে যাচ্ছে। ১৯৯৫ সালে, চীনের বেইজিংয়ে অনুষ্ঠিত হওয়া ৪র্থ “ওয়ার্ল্ড কনফারেন্স অন ওমেন” শীর্ষক সম্মেলনে “প্ল্যাটফর্ম ফর অ্যাকশন (বিডিপিএ)” কে নারীদের ক্ষমতায়ন ও প্রগতিশীলতায় পথ প্রদর্শক হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়া হয়। বাংলাদেশ ইউএন ওমেন সোশ্যাল মিডিয়ায় হ্যাশট্যাগ যুক্ত ক্যাম্পেইন #অরেঞ্জ-দ্যি-ওয়ার্ল্ড (#orangetheworld) শুরু করেছিল গতবছর ১লা নভেম্বর। যেখানে গ্লোবাল সাসটেইনেবল ডেভেলপমেন্ট গোল’স এর এই ১০টি মানদণ্ড পূরনের মাধ্যমে বৈষম্য বা অসমতায়ন দূর করা সম্ভব।  নারীর সমতায়ন বজায় রাখতে এবং সহিংসতা কমাতে বাংলাদেশ অনেক আগে থেকেই উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করে আসছে। ইতিহাস এবং বিশ্ব প্রেক্ষাপট  ১৯০৯ নিউইয়র্কের সোশ্যাল ডেমোক্রেট নারী সংগঠনের পক্ষ থেকে আয়োজিত…

Reading Time: 4 minutes শীতের আমেজ কাটতে বসেছে। চারদিকে কিন্তু সবকিছুই রুক্ষ। শীতের সময়টা প্রকৃতিগত দিক থেকে এমনই, এখানে আমার আপনার করার তেমন কিছু নেই। কিন্তু, নিজের ঘরের সাজে আমার আপনার অনেক কিছু করবার আছে। ঘরের আমেজ বদলে ফেলতে রঙের প্রভাব অনেক। শুনতে একটু অদ্ভুত মনে হলেও এটাই ঠিক। সবুজ, হলুদ, কমলা রঙগুলো ঘরের ভেতরের শীতল ভাব দূর করে দেয়, একটা সতেজভাব এনে দেয়। ঘরের ভেতর নতুন কিছু করতে দেয়ালের রঙ বদলে ফেলার তেমন প্রয়োজন নেই, ছোটখাটো কিছু করলেই কিন্তু ঘর অনেক বদলে যাবে। রঙের জাদু কিন্তু এমনই। তাই হয়তো “ফেব্রুয়ারির রঙ হলুদ” হয়েছিল। বসন্তকে মনে ধরে রাখতে ঘরের সাজ যদি মাস অনুযায়ী হয়, তাহলে মন্দ হয়না কিন্তু! তাহলে, কি আমি বলতে পারি মার্চ হোক কমলা রঙ এর? কমলা রঙ বেশ উজ্জ্বল এবং প্রাণবন্ত একটি রঙ। যে ঘরে আলোর যাওয়া আসা কিছুটা কম সেখানেও কমলা রঙ মূহুর্তেই আলো ছড়াবে। হোম ইন্টেরিয়রে কমলা রঙের ব্যবহারটা বেশ মজার। এতই মজার যে, এই রঙটা ঘরের সাজে বেশ…

Reading Time: 4 minutes উঠানে এখনো বসন্ত। চারদিকে বসন্ত বাতাস বইছে! আনন্দ উৎসবের কোন শেষ নেই যেন। এইজন্যই কী ফেব্রুয়ারির রঙ হলুদ? ঋতু বৈচিত্রের এই দেশে প্রতিটা মৌসুমই উৎসব মুখর হয়ে ওঠে। শুধু উৎসবের খোঁজ রাখলে কি চলবে নাকি? জানতে হবে এই শহরে কোথায় কি হচ্ছে? আচ্ছা, পুরো মাসে কোথায় কি হচ্ছে জানা গেলে কেমন হয়? নিশ্চয়ই ভালো। সারা মাসের প্ল্যান করতে সুবিধা হবে। তাহলে আর দেরি না করে জেনে নেই মার্চে কোথায় কী হচ্ছে ?     ২য় জাতীয় সাহিত্য উৎসব ২০২০ তারিখঃ  ৫ই মার্চ থেকে ৭ই মার্চ পর্যন্ত সময়ঃ  দুপুর ১২.৩০টা – বিকেল ৫.৩০টা স্থানঃ সরকারি ল্যাবরেটরি হাই স্কুল “বুক ক্লাব অব দা ল্যাবরেটরিয়ান্‌স” আয়োজিত “২য় জাতীয় সাহিত্য উৎসব ২০২০” চলবে তিন দিন ধরে। এখানে ৬ষ্ঠ শ্রেণী থেকে শুরু করে স্নাতক ৪র্থ বর্ষের ছাত্রছাত্রীদের জন্য রয়েছে নানা আয়োজন। সাহিত্য সাহিত্যে হবে সব প্রতিযোগিতা। রহস্য উন্মোচন খেলা, প্রিয় লেখক প্রিয় চরিত্র, বুক রিভিউ, গল্প পড়ার মত চমৎকার সব প্রতিযোগিতা থাকছে এই সাহিত্য উৎসবের “বই…

Reading Time: 3 minutes ব্যাংক লোনের উপর সুদের হার একক সংখ্যায় নামিয়ে নিয়ে আসা সরকারের নতুন কিছু উদ্যোগের একটি। এজন্য কেন্দ্রীয় ব্যাংক কিছুদিন আগে একটি অফিসিয়াল নোটিশ জারি করে যার মূল কথা ছিল সকল ব্যাংক-কে আগামী ১লা এপ্রিল ২০২০ এর মধ্যেই ক্রেডিট কার্ড বাদে সবধরণের লোনের উপর সুদের হার সর্বোচ্চ ৯ শতাংশে নামিয়ে আনতে হবে। প্রস্তাবনাটিকে সঠিকভাবে বাস্তবায়ন করা গেলে এই সুদের হার হ্রাস হওয়ার বিরাট এক প্রভাব পড়তে যাচ্ছে রিয়েল এস্টেট খাতে। কীভাবে? চলুন দেখে নেয়া যাক সম্ভাব্য কিছু দিক। মূলধন সম্পদ ব্যয় (cost of capital) এবং মুদ্রাস্ফীতির উপর প্রভাব বন্ধকী সম্পদের মূল্য নির্ধারণে সুদের হার অবশ্যই বড় একটি প্রভাব রাখবে, যা পরোক্ষভাবে আপনার প্রপার্টি ক্রয়ের সিদ্ধান্তকে করবে প্রভাবিত। বন্ধকী ঋণের ব্যয় বেড়ে যায় সুদের হার বৃদ্ধির সাথে সাথে। বিপরীরক্রমে এই ঋণের বোঝা কমে যাবে যদি সুদের হার কমে যায়। বর্তমান নিয়ম অনুসারে ব্যাংক লোনের হার কোনভাবেই ৯% এর বেশি নির্ধারণ করা যাবে না, যা আগে ব্যাংকভেদে ১৪% পর্যন্ত হত, এবং যা অনেকটাই…

Reading Time: 5 minutes আমার মাতৃভাষা বাংলা। কিন্তু এদেশে আরও কিছু মানুষ আছেন যাদের দেশের ভাষা বাংলা হলেও মায়ের ভাষা কিন্তু বাংলা নয়! ঘরের বাইরে আমরা যে যেভাবেই কথা বলি না কেন, ঘরে যে ভাষায় কথা বলি সেটাই তো মায়ের ভাষা! আপনার আমার মাতৃভাষা! আজকে এই আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে চলুন তবে ঘরে ফিরে যাই। মায়ের ভাষায়, মায়ের বাসায় ফিরি!  বাংলাভাষা, যে ভাষাতে আমি খুঁজে পাই সোঁদামাটির গন্ধ। যে ভাষা আমাকে ফিরিয়ে নিয়ে যায় শিকড়ের কাছাকাছি। যে ভাষাকে রাষ্ট্রভাষার সম্মান এনে দিতে দুঃসাহসী তরুণ অরুণদের আত্মত্যাগ। ক্যালেন্ডারের পাতায় ৫২ তে ফিরে যাওয়া! তবে, মাতৃভাষার জন্য ত্যাগের গল্প ২০২০ এ এসেও জমাট বাঁধে। আজকে শোনাব সেইসব না জানা ত্যাগের গল্প, মায়ের ভাষায় বলতে না পারার গল্প! যে গল্পের চরিত্রদের ঘরের বাইরে মাতৃভাষা বলতে না পারার কষ্ট আছে, একই সাথে মায়ের ভাষাকে হৃদয়ে বয়ে বেড়ানোর সাহসও আছে। চলুন তবে, মুদ্রার এপিঠ থেকে ওপিঠে উঁকি দেই…।। সাঁওতাল একটি পুরনো শ্রেণীকক্ষ! বেঞ্চ বা ব্ল্যাকবোর্ড এতটাই পুরোনো, সাদা চকের আঁচড়ও…