Category

পালস

Category

Reading Time: 3 minutes উঁচু ভবনগুলো আকাশ ছুঁয়ে ফেলে। দূর থেকে দেখতে এমনই মনে হয়। চোখ ধাঁধানো এই নকশাগুলো যেমন মনে গেঁথে থাকে তেমনি জায়গা করে নেয় ইতিহাসের পাতায়ও। সময়ের সাথে এই ভবনগুলোর উচ্চতা যেন বেড়েই চলেছে। গিজার সুউচ্চ পিরামিডগুলো দেখলেই আমরা বুঝতে পারবো, উঁচু এই ভবন নির্মাণের অনুপ্রেরণা কোথা হতে এসেছে। চতুর্দশ শতাব্দীতে এসে গির্জার স্পায়াররা ৪৮১ ফুটের বেশি উচ্চতায় ভবন তৈরি করেছিলেন। ১৩১১ সালে ইংল্যান্ডের লিংকন ক্যাথেড্রাল সর্বপ্রথম সেই রেকর্ড ভেঙ্গেছিল ৫২৫ ফিটের ভবন তৈরি করে। যদিও তা অক্ষত থাকেনি। শক্তিশালী ঝড়ের কবলে পড়েছিল ভবনটি। এরপর তৈরি হয় কতশত উঁচু ভবন। স্কাইস্ক্র্যাপারের ইতিহাস জানলে আপনি অচিরেই বুঝতে পারবেন উঁচু ভবনগুলোর পরিকল্পনা মূলত কোথা থেকে আসতো। আজকে এমনই কিছু ভবন সম্বন্ধে জানবো। শুরু করা যাক তাহলে।  মারদেকা-১১৮ বা পিএনবি ১১৮  মারদেকা শব্দটির অর্থ হচ্ছে স্বাধীনতা। ডায়মন্ড আকৃতির এই ভবনের নাম দেয়া হয়েছে তাই মারদেকা। দেশটির স্বাধীনতা সংগ্রামের ইতিহাসের সাথে মিলিয়ে এমন নামকরণ করা হয়। নির্মাণাধীন ১১৮ তলার এ ভবনটি মারদেকা-১১৮ বা পিএনবি ১১৮…

Reading Time: 5 minutes মাধ্যমিকের পাঠ শেষ করে প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা অর্জনে শিক্ষার্থীদের পরবর্তী লক্ষ্য থাকে উচ্চ মাধ্যমিকে পড়াশোনার জন্য কলেজে ভর্তি হওয়া। বিজ্ঞান, ব্যবসায় শিক্ষা বা মানবিক, পছন্দের বিভাগে ভর্তি হওয়ার জন্য প্রয়োজন শহরের সুপরিচিত কলেজগুলো সম্পর্কে  প্রয়োজনীয় ধারণা থাকা। ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন এবং ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন এর ওয়ার্ডের আওতাধীন এলাকা সমূহে রয়েছে বেশ কিছু কলেজ। ঢাকা উত্তরের সেরা কলেজ গুলোর পাশাপাশি যারা ঢাকা দক্ষিণে অবস্থিত কলেজ এর খোঁজ করছেন, তাদের জন্য এই ব্লগে থাকছে ঢাকা দক্ষিণের সেরা কলেজ সমূহ কোথায় অবস্থিত এবং এই কলেজ সমূহ সম্পর্কে প্রয়োজনীয় কিছু তথ্য। চলুন জেনে নেয়া যাক কোন কোন কলেজ রয়েছে নামকরা কলেজের তালিকার শীর্ষে।    ভিকারুননিসা নুন স্কুল এবং কলেজ ঢাকা দক্ষিণের সেরা কলেজ গুলোর মধ্যে অন্যতম ভিকারুননিসা নুন স্কুল এবং কলেজ। ঢাকার দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন এর অন্তর্ভুক্ত বেইলি রোড এলাকায় অবস্থিত এই কলেজটি মেয়েদের জন্য অন্যতম সেরা একটি স্কুল ও কলেজ। ১৯৫২ সালে তৎকালীন পাকিস্থানের গভর্নর ফিরোজ খান নুনের সহধর্মিনী আধুনিক এই শিক্ষা…

Reading Time: 11 minutes শহর পরিচালনা এবং সঠিকভাবে শহর ব্যবস্থাপনার জন্য ঢাকার সিটি কর্পোরেশনকে মূলত দুইটি কর্পোরেশনের অধীনে বিভক্ত করা হয়। যার একটি হল ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন এবং ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন। রাজধানী ঢাকার উত্তর অংশের পাশাপাশি ঢাকার দক্ষিণাঞ্চল সার্বিকভাবে পরিচালনার লক্ষ্যে তাই গঠন করা হয়  ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন বা ডিএসসিসি। ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের ওয়ার্ড ও এরিয়া সমূহ এর পাশাপাশি ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের ওয়ার্ড সংখ্যা ৭৫টি। এছাড়া সংরক্ষিত ওয়ার্ড রাখা হয়েছে ২৫টি।  ডিএসসিসি বা  ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের অধীনে থাকা এলাকা সমূহ এর মধ্যে রয়েছে ধানমন্ডি, খিলগাঁও, বাসাবো, মুগদাপাড়া, ফকিরাপুল, আরামবাগ, মতিঝিল, শাহজাহানপুর, মালিবাগ, পল্টন, শান্তিনগর, সার্কুলার রোড, গ্রীন রোড, এলিফ্যান্ট রোড, সেগুনবাগিচা, শাহবাগ, ওয়ারী, যাত্রাবাড়ী, পুরান ঢাকা সহ অন্যান্য আরও এলাকা সমূহ।   ১০টি অঞ্চলে বিভক্ত ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মোট আয়তন, ওয়ার্ড এবং এর আওতাধীন এলাকা সমূহ সম্পর্কে আমাদের অনেকেরই হয়তো পরিপূর্ণভাবে ধারণা নেই। আর তাই আপনাদের সুবিধার্থে, ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের ওয়ার্ড ও এলাকা সমূহ এর সম্পূর্ণ তালিকা…

Reading Time: 4 minutes রিয়েল এস্টেটে বিনিয়োগ করার সুবিধা রয়েছে অনেক। নির্বাচিত প্রপার্টি থেকে নগদ প্রবাহ বা ক্যাশ ফ্লো, রিটার্ন এবং কর প্রদানের মত নানাবিধ সুবিধা উপভোগ করার পাশাপাশি এই সেক্টরে বিনিয়োগের মাধ্যমে পয়সা ও ব্যাংক ব্যাল্যান্স তৈরি করার যথেষ্ট সম্ভাবনা প্রদান করে থাকে। গত দশকে বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো, বাংলাদেশের রিয়েল এস্টেট মার্কেটও ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। রিয়েল এস্টেটে বিনিয়োগ এখন বেশ সহজ এবং জনপ্রিয় একটি ক্ষেত্র। কেবল রাজধানী ঢাকাই এখন বিনিয়োগকারীদের জন্য একমাত্র আকর্ষণ নয়। রিয়েল এস্টেটে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে বন্দরনগরী চট্টগ্রামেও ঢাকার মতই বিনিয়োগের চাহিদা রয়েছে। আপনি কি চট্টগ্রাম রিয়েল এস্টেটে বিনিয়োগ  নিয়ে সন্দিহান? আজকের ব্লগে আমরা চট্টগ্রাম রিয়েল এস্টেটে বিনিয়োগের সম্ভাব্য কারণ নিয়ে আলোচনা করবো!  চলমান উন্নয়ন   গত এক দশকে, চট্টগ্রাম কিছু অবিশ্বাস্য উন্নয়নের সাক্ষী হয়েছে। এই শহরের প্রবৃদ্ধি ছিল লক্ষণীয়, অর্থনৈতিক অঞ্চল থেকে শুরু করে সমুদ্র বন্দর এমনকি এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে ইত্যাদি সবকিছুই এখন আলোচনার মূল বিষয়। মিরসরাই ইকোনমিক জোন একটি শিল্প অর্থনৈতিক অঞ্চল যা বর্তমানে মীরসরাই উপজেলা, চট্টগ্রামের সন্দ্বীপ চ্যানেলের তীরে…

Reading Time: 5 minutes ঢাকায় বসবাসের জন্য জনপ্রিয় যেসব এলাকা রয়েছে তার মধ্যে অন্যতম মিরপুর। ট্রাফিক জ্যাম, মেট্রো রেল কিংবা মজাদার সব খাবারের রেস্টুরেন্টের জন্য মিরপুরের নাম শোনা হয়নি এমন মানুষ হয়তো খুঁজে পাওয়া মুশকিল। তবে ভাড়া ও সুযোগ-সুবিধার সামঞ্জস্যে ঢাকার সেরা এলাকা গুলোর মধ্যে মিরপুর অন্যতম। চাহিদা এবং সুযোগ-সুবিধার দিক বিবেচনা করলে এই এলাকায় আপনি বিভিন্ন আয়তন এবং ভাড়ার ফ্ল্যাট খুঁজে পাবেন। শুধু তাই-ই নয়, নামীদামী স্কুল-কলেজ, শপিং মল, হাসপাতাল সব কিছুই আছে ঢাকার বহু পুরতন এই এলাকা জুড়ে। কেনাকাটার সুবিধার জন্য মিরপুর ও এর আশেপাশের এলাকায় বসবাসরত অনেকেই শপিং করতে পছন্দ করেন মিরপুরের বিভিন্ন মার্কেট থেকে। তবে স্বাস্থ্য সেবার দিক বিবেচনা করলেও কিন্তু পিছিয়ে নেই মিরপুরের হাসপাতাল গুলো। মিরপুরে রয়েছে ঢাকার সুপরিচিত কয়েকটি হাসপাতাল। যেখান থেকে আপনি সব ধরনের চিকিৎসা সেবা পেতে পারবেন। আর এ কারণেই ঢাকা এবং ঢাকার বাইরের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে এখানে চিকিৎসা সেবা নিতে অনেকেই আসেন হরহামেশাই। মিরপুরের হাসপাতাল এর কথা বললে যে ৫টি হাসপাতাল এর কথা না বললেই…

Reading Time: 4 minutes যারা বই পড়তে ভালোবাসেন, তারা যেন দিন-রাতের যেকোনো সময়ই বইয়ের সাথে ব্যস্ত সময় কাটাতে পছন্দ করেন। কাজের ফাঁকে, বিকেলের সময়টাতে এক কাপ চা বা কফি হাতে নিয়ে কিংবা রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে অনেকেই বই পড়তে পছন্দ করেন। ভালোবাসেন বইয়ের জগতে হারিয়ে যেতে। তবে বই পড়ার এই অভ্যাসটা এখন আর কিন্তু ঘরের মধ্যে সীমাবদ্ধ নেই। সময় সুযোগ মতো ব্যস্ততার ফাঁকে কিংবা ছুটির দিনে নিজেকে সময় দেয়ার জন্য অনেকেই পছন্দ করেন ঢাকার বুকশপ ক্যাফে গুলোতে সময় কাটাতে। আর সঙ্গ দিতে সাথে যদি থাকে দারুণ কোন বই, তবে তো কথাই নেই! ঢাকা শহরের বিভিন্ন প্রান্তে রয়েছে এমনই কিছু বুকশপ ক্যাফে, যেখানে বসে আপনি বই পড়তে পারবেন, সাথে এক কাপ কফি হাতে আড্ডাও দেয়া যাবে।  তবে চলুন এমনই কয়েকটি ঢাকার বুকশপ ক্যাফে সম্পর্কে জেনে নেয়া যাক।  বেঙ্গল বই ঢাকার বুকশপ ক্যাফে এর কথা বললে প্রথমেই যার নাম না নিলেই নয়, সেটা হল বেঙ্গল বই। গল্প-আড্ডা, বই পড়া, চা-কফি খাওয়ার জন্য সাম্প্রতিক সময়ে বেশ পরিচিত…

Reading Time: 4 minutes রোমাঞ্চকর অভিজ্ঞতার সম্মুখীন হয়ে বনাঞ্চলে ঘুরে বেড়ানোর মতো দুঃসাহসিক কাজ ভ্রমণপিপাসুদের জন্য সবসময়ই বিশেষ। এমনকি আপনি যদি অ্যাডভেঞ্চার পাগল নাও হয়ে থাকেন, তবুও দারুণ এই জায়গাগুলো নিঃসন্দেহে আপনাকে মুগ্ধ করবে। বাংলাদেশে এরকম অনেক জায়গা রয়েছে যেখানে ভ্রমণের অভিজ্ঞতা আপনাকে ঠিক এরকমই অনুভূতি দিবে। দক্ষিণ-পশ্চিমে সুন্দরবনের ঘন জঙ্গল থেকে শুরু করে উত্তর-পূর্বের রাতারগুলের অপরূপ সোয়াম্প ফরেস্ট-সহ বাংলাদেশের বিচিত্র বন সমূহ রোমাঞ্চকর গল্প তৈরির জন্য যেন দারুণ এক উদাহরণ। আর তাই প্রকৃতি প্রেমী মানুষেরা যখনই সময় এবং সুযোগ পান তখনই তারা যেন ছুটে যান অসাধারণ সৌন্দর্যে ভরপুর এইসব জায়গাগুলোতে।  আর তাই আমাদের আজকের আর্টিকেলে ভ্রমণের জন্য বেশ বিখ্যাত বাংলাদেশের ৪টি বিচিত্র বন সম্পর্কে আমরা তুলে ধরেছি, যা প্রত্যেক ভ্রমণপিপাসুদের কাছে অন্যতম অ্যাডভেঞ্চারাস জায়গা হিসেবে পরিচিত।  হবিগঞ্জের রেমা-কালেঙ্গা  ঢাকা থেকে ১৩০ কিলোমিটার দূরে হবিগঞ্জে অবস্থিত বাংলাদেশের বৃহত্তম প্রাকৃতিক পাহাড়ি বন রেমা- কালেঙ্গা।  সুন্দরবনের পর এই বনভূমিটি বাংলাদেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম বণ্যপ্রাণী অভয়ারণ্য এবং জীব ও উদ্ভিদ বৈচিত্র্য সমৃদ্ধ বন হিসেবে পরিচিত। ৪,৬৮৩ একর জায়গা…

Reading Time: 4 minutes ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন বেশ জনপ্রিয় ডিএনসিসি নামে, যেখানে রয়েছে দেশের সেরা কিছু পরিকল্পিত এলাকা। পশ্চিম উত্তরা, পূর্ব উত্তরা, উত্তরখান, দক্ষিণখান, বিমান বন্দর, খিলক্ষেত, ভাটারা, বাড্ডা, রামপুরা, হাতিরঝিল, শিল্পাঞ্চল, তেজগাঁও, শেরে বাংলা নগর, মোহাম্মদপুর, আদাবর, দারুসসালাম, মিরপুর, পল্লবী, রূপনগর, শাহালী, কাফরুল, ভাষানটেক, ক্যান্টনমেন্ট, বনানী এবং গুলশান ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের আওতায় পড়ে। পরিকল্পিত এই এলাকাগুলো বাদেও ঢাকা উত্তরে বসবাস করার আরও অনেক কারণ রয়েছে। যেমন- লাইফস্টাইল, ভাড়া ও সুযোগ-সুবিধার সামঞ্জস্য, দৈনন্দিন সুযোগ-সুবিধা সবকিছু এই দিককার এলাকায় রয়েছে। আরও রয়েছে চমৎকার কিছু কলেজ। তাই আজকে লিখবো ঢাকা উত্তরের সেরা কলেজ সমূহ নিয়ে। রাজউক উত্তরা মডেল কলেজ ১৯৯৪ সালে, মানুষের জন্য শিক্ষা এই শ্লোগান নিয়ে রাজউক উত্তরা মডেল কলেজ পথ চলা শুরু করে। বহু বছর শিক্ষার আলো ছড়িয়ে এই কলেজটি এখন শহরের অন্যতম সেরা কলেজ হিসেবে পরিচিত। উত্তরার বাসিন্দাদের কাছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসেবে এই কলেজটি বেশ পছন্দের। এই কলেজের বয়স একদমই বেশি নয়, তবে অল্প সময়ের ভেতর রাজউক উত্তরা মডেল কলেজ এই…

Reading Time: 4 minutes জনসংখ্যার অধিক চাপ এবং এর ফলে সৃষ্ট সমস্যাগুলো চল্লিশ বছরেরও অধিক সময় ধরে ঢাকা মহানগরীর উপর মারাত্মক প্রভাব ফেলছে। স্বাধীনতার পর পরই যখন জনসংখ্যা বাড়তে শুরু করে, তখন এর সবচেয়ে বড় প্রভাব পড়ে ঢাকা শহরের উপর। পরবর্তী কয়েক দশকের মধ্যেই এই জনসংখ্যা বেড়ে তিন গুণ হয়ে যায়। এতে করে নতুন করে বিভিন্ন ধরনের সমস্যা দেখা দেয়। বেড়ে যায় বেকারত্বের সংখ্যা। পরিবেশ দূষণ-সহ, খাবারের অপ্রতুলতা ও বিভিন্ন অসুখে জর্জরিত হয়ে মানুষের মৃত্যুর সংখ্যাও দিন দিন বেড়ে যেতে থাকে।  তবে একবিংশ শতাব্দীতে এসে এসকল বিষয়গুলোতে সরকারের সতর্কতা এবং বিভিন্ন কৌশলগত পরিকল্পনার কারণে পরিবর্তন আসলেও, যানজটের ভয়াবহ অবস্থা শহরবাসীর জন্য রীতিমত দুঃস্বপ্নের  কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। আর তাই ভয়াবহ এই যানজটের অবস্থায় পরিবর্তন আনতে সরকার গত ১৫ বছরে ঢাকায় উড়ালসেতু নির্মাণ করেছে মোট ৭টি।    ঢাকা শহরের যানজট কমিয়ে আনতে এই উড়ালসেতু গুলোর প্রভাব এবং এই উড়ালসেতু গুলোর সংক্ষিপ্ত বিবরণ থাকছে এই ব্লগে।  মহাখালী উড়ালসেতু  মহাখালী উড়ালসেতু বাংলাদেশের প্রথম উড়ালসেতু হিসেবে পরিচিত। ২০০৪ সালে যা…

Reading Time: 5 minutes শপিং করতে যারা পছন্দের করেন তারা শহরের বিভিন্ন অলিগলি ঘুরে খুঁজে বের করেন তাদের পছন্দের মার্কেট। যেখান থেকে কেনাকাটা করে তারা স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করেন, পান স্বস্তি। আর এরই ধারাবাহিকতায় ঢাকা শহরের বিভিন্ন মার্কেট নিয়ে লেখা আমাদের সিরিজের আজকের আয়োজনে থাকছে ধানমন্ডির বিভিন্ন মার্কেট। কেনাকাটা করার সাথে যারা প্রতিনিয়তই সম্পৃক্ত থাকেন, তাদের কাছে ধানমন্ডি অন্যতম পছন্দের একটি এরিয়া। ব্র্যান্ডের জিনিস কেনা থেকে শুরু করে বাজেট শপিং, এক ধানমন্ডি ঘুরেই সেরে ফেলা সম্ভব কেনাকাটার অ্যা টু জেড। এমনকি ধানমন্ডি এরিয়া থেকে দূরেও যারা থাকেন, তারাও অনেক সময় কেনাকাটার পুরো লিস্ট সাজিয়ে হাতে সময় নিয়ে চলে আসেন ধানমন্ডিতে, বিশেষ করে যেকোনো বড় উৎসবের সময় কেনাকাটার জন্য এই এলাকার মার্কেটগুলোই যেন থাকে পছন্দের তালিকায় শীর্ষে। তবে চলুন ধানমন্ডির বিভিন্ন মার্কেট সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেয়া যাক।   সীমান্ত স্কয়ার মার্কেট  ধানমন্ডির ২ নম্বর সড়ক দিয়ে ঢুকে বাংলাদেশ রাইফেলস সদর দপ্তরের ৪ নম্বর গেইট সংলগ্ন ধানমন্ডি লেকের বিপরীত পাশে চোখে পড়বে সীমান্ত স্কয়ার মার্কেট। ধানমন্ডি এলাকার অভিজাত…