Reading Time: 4 minutes

সময় করে একবার দেখুন তো আপনার বাসার এন্ট্রেন্স কি ঠিকঠাক আছে? কোন সংস্কারের কি প্রয়োজন রয়েছে? বাসার এন্ট্রেন্স আপনার রুচি এবং ব্যক্তিত্বের বহিঃপ্রকাশ ঘটায়। কেননা, বাসার এন্ট্রেন্স সবার প্রথমে চোখে পরে তাই কম বেশি সকলেই এখান থেকে প্রথমিক ধারণা তৈরি করে নেয়। ১০টি উপায়ে ফ্ল্যাটের মূল্য বৃদ্ধি এর মধ্যে এন্ট্রেন্স বদলানো অন্যতম একটি উপায় এবং বাসা বিক্রয়ের জন্য এটি খুবই উপকারী । তবে আর দেরি না করে চলুন জেনে নেই কি কি সহজ উপায়ে আপনি বাসার এন্ট্রেন্স বদল করা যায়।  

দরজা পরিবর্তন করুন   

অনেক গুলো দরজা
পুরনো দরজা সরিয়ে নতুন দরজা ব্যবহার করুন

ইন্টেরিয়র  ও এক্সটেরিয়র ডিজাইন এখন একটি অত্যাবশ্যকীয় উপাদান। এটাও সত্য যে এই সকল ইন্টেরিয়র  ও এক্সটেরিয়র ডিজাইন করা মুখের কথা নয়। যেমন প্রয়োজন সঠিক নান্দনিক জ্ঞান তেমনি আর্থিক সামর্থ্য। যদিও ইন্টারনেটের কল্যাণে পছন্দের ডিজাইন সম্পর্কে এখন কম বেশি আমরা সকলেই জানি কিন্তু অর্থনৈতিকভাবে তা সামর্থ্যের মধ্যে নাও হতে পারে। তাই আপনার এন্ট্রেন্সের চেহারা বদলাতে দরজা পরিবর্তন সবথেকে সহজ এবং ভাবনাহীন একটি উপায়। আপনি চাইলেই সাধ্যমত বিভিন্ন রঙের নানা নকশার দরজা পছন্দ এবং স্বল্প খরচের মধ্যেই তা প্রতিস্থাপনও করতে পারেন।     

গাছের টব ব্যবহার করুন

গাছওয়ালা দরজা
টুকরো টুকরো সবুজ ছিটিয়ে দিন ঘরের সকল কোনে

প্রকৃতি চোখ ও মনের প্রশান্তি বরাবরই আকর্ষণ করে নেয়। প্রকৃতি ঘরের সৌন্দর্য বৃদ্ধি করতে বরাবরই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে আসছে। তাই হয়তো ঘর সজ্জার জন্য ঘরের ভেতর টুকরো টুকরো সবুজ আমরা সবাই ছড়িয়ে রাখি। এমনকি বাসার উঠান এবং ছাদে ফুলের বাগান করা আমাদের অনেকের শখ। তাই মন্দ হবে না এন্ট্রেন্সে ফুলের টব কিংবা পাতাবাহার জাতীয় গাছের টব রাখলে। যদিও ফুলের টবে প্রয়োজন বাড়তি পরিচর্যা। এক্ষেত্রে পাতাবাহারগুলো অনেকটা স্বস্তিময়, খুব একটা পরিচর্যার প্রয়োজন পরে না সময়মত পানি দিলেই যথেষ্ট। আপনি কাছের যেকোন নার্সারি থেকে পছন্দের গাছ সংগ্রহ করতে পারবেন। তারপর এন্ট্রেন্সে পছন্দমত রেখে দিন আর অবশ্যই পরিচর্যা করতে ভুলবেন না। এভাবে আপনি চাইলেই স্বল্প খরচে ও সহজ উপায়ে এন্ট্রেন্সকে আকর্ষণীয় করে তুলতে পারেন।

আসবাবপত্র যোগ করুন

দুইটি চেয়ার
চেয়ার কিংবা বেঞ্চ রেখে দিতে পারেন দরজার সামনে

সাধারণ একটি চেয়ার কিংবা একটি বেঞ্চ। বেশ হয় যদি একটি দোলনা ঝুলিয়ে দিতে পারেন। এই উপায়টি যেমন সহজ তেমনি খুব প্রয়োজনীয়। প্রথমে প্রয়োজনীয় দিক নিয়ে আলোচনা করা যাক। এমন হতেই পারে আপনি বাসায় উপস্থিত নন কিন্তু তখনই মেহমানের আগমন ঘটল। চিন্তার কিছু নেই তারা অনায়াসে এন্ট্রেন্সে রাখা চেয়ার কিংবা বেঞ্চে বসে অপেক্ষা করতে পারবেন।  বাইরে যেতে জুতোর ফিতা বাঁধা নিয়ে আর মেঝেতে বসার আর দরকার হবে না, আপনি সময় নিয়ে বেঞ্চে বসে ফিতা বেধে নিতে পারবেন। এছাড়াও এই সকল চেয়ার ও বেঞ্চ নান্দনিক এবং আকর্ষনীয় একটা আউটলুক তো দিয়েই যাচ্ছে। চাইলে, কিছু কুশন রেখে দিতে পারেন। বসতেও আরাম হবে দেখতে সুন্দরও লাগবে।

দেয়াল এবং দরজা রঙ করুন  

দরজা এবং দেয়াল
দেয়ালের রঙের সাথে মানিয়ে যায় এমন রঙ বাছাই করুন

গাছের টব যখন প্রাকৃতিক রঙের আভা ছড়িয়ে যাচ্ছে তখন আর একটি কাজ করলে মন্দ হয় না! তাহলো, কিছুটা কৃত্রিম রঙের ব্যবহার। বাজারে এখন রয়েছে নানা রকম রঙের উপস্থিতি। বাসার এক্সটেরিয়েরের সাথে মিলিয়ে পুনরায় রঙ করতে পারেন প্রধান দরজাটি! চাইলে নতুন কোন রঙও ব্যবহার করতে পারেন। কিংবা এন্ট্রেন্সে রাখা আসবাবগুলো রাঙিয়ে নিতে পারেন। এই সময়ের ফ্যাশন ট্রেন্ড অনুযায়ী প্রধান দরজা এখন যেকোন রঙের হতে পারে। কনট্রাস্ট রঙেরও হতে পারে। তাই রঙের নির্বাচনে এখন আর কোন প্রতিবন্ধকতা নেই। যেমন খুশি তেমন রঙ বাছাই করুন।

বাহারি বাতি ব্যবহার করুন

আলোর বাতি
বাহারি আলোয় ভরিয়ে দিন আপনার ঘরের এন্ট্রেন্স

আলোর সঠিক ব্যবহার নিয়ে যাবে আপনাকে অন্য এক ভুবনে! ওপরে লেখা যেকোন উপায় যদি আপনি নাও প্রয়োগ করেন তবুও কিছু বাতির ব্যবহার একটি অবাক করা পরিবেশ তৈরি করবে। এখন বাজারে রয়েছে নানা রকম বাহারি বাতি! ল্যাম্প শেড, ঝালর বাতি, মৃদু আলোর বাতি, মরিচ বাতি আরও অনেক। এন্ট্রেন্সের সাথে মানিয়ে যাবে এমন বাতি বাছাই করে সহজেই বদলে ফেলুন আপনার এন্ট্রেন্স। ভাবছেন কোথায় পাবেন বাহারি বাতি? একদম চিন্তার কিছু নেই, রয়েছে নিউমার্কেট, ডিসিসি মার্কেট এবং স্টেডিয়াম  মার্কেট ইত্যাদি। যেখানে আধুনিক নকশায় পাবেন বাহারি সব বাতি।

শুধু বাসার ভেতরকার সৌন্দর্য নিয়ে ভাবলে হবে? ভাবতে হবে পুরোটা বাসা নিয়ে। আপনার প্রিয় বাসাটির কোন অংশই কম গুরুত্বপূর্ণ নয়। ওপরে লেখা উপায়গুলো প্রয়োগ করে বাসার এন্ট্রেন্স এক ঝলকেই বলদে ফেলতে পারবেন। আপনি কি এই উপায়গুলো প্রয়োগ করেছেন? সেই বদলে ফেলার অভিজ্ঞতাটি কেমন এবং কেমন হয়েছে আপনার নতুন এন্ট্রেন্স সে সম্বন্ধে কমেন্ট সেকশনে জানিয়ে দিন! 

Write A Comment