বিক্রয়ের জন্য ফ্ল্যাট - বাড্ডা

এই সার্চ রেজাল্টটি সেভ করুন
সব ফিল্টার মুছে ফেলুন
সর্বমোট ৫৭৩ টি ফ্ল্যাট এর মাঝে ১ - ২৪ পর্যন্ত ফ্ল্যাট দেখুন
নতুন থেকে পুরাতন

বাড্ডাকে কেন আপনার স্বপ্নের আবাস করবেন

ঢাকা শহরের মধ্যে বাড্ডা অন্যতম একটা জায়গা, যেখানে জীবন যাপন খুব সহজ। আমাদের সমাজের মধ্যবিত্ত মানুষের জন্য সাশ্রয়ী অনেক ফ্ল্যাট রয়েছে বাড্ডা এলাকায়। উত্তর বাড্ডা, দক্ষিণ বাড্ডা, মধ্য বাড্ডা এবং মেরুল বাড্ডা এই এলাকার অন্তর্ভুক্ত। শাহজাদপুর এর নিকটস্থ এলাকা। এছাড়াও এই এলাকার আশপাশ জুড়ে রয়েছে রেস্তোরাঁ, স্কুল, উনিভার্সিটিই, মল এবং বিনোদনের জন্য রয়েছে খেলার জায়গা। সুতরাং সব কিছুই আপনি খুব সহজেই হাতের নাগালে পাচ্ছেন এই এলাকায়।

বাড্ডা থেকে যাতায়াত এবং যোগাযোগ ব্যবস্থা

- গুলশান এবং বনানী এলাকা বাড্ডা এলাকার নিকটস্থ হওয়ায়, সাধারণত গুলশান এবং বনানী এলাকায় কর্মরত অধিকাংশ ব্যাক্তিরাই বাড্ডায় বসবাস করতে আগ্রহী। এখানকার অধিবাসীরা সাধারণত নিকটস্থ কর্পোরেট এলাকা যেমন গুলশান, বারিধারা, রামপুরা, আফতাব নাগর এবং বনানী এলাকায় কাজ করে। বাড্ডা থেকে জাতীয় টেলিভিশন কেন্দ্রেরের দূরত্ব ২ কিলোমিটার এবং ১১ মিনিটের ড্রইভ রয়েছে। আফতাব নগর এর দুরুত্ব ৪ কিলোমিটার। গুলশান এবং বনানী এলাকা বাড্ডা এলাকার নিকটস্থ হওয়ায়, সাধারণত গুলশান এবং বনানী এলাকায় কর্মরত অধিকাংশ ব্যাক্তিরাই বাড্ডায় বসবাস করতে আগ্রহী। এখানকার অধিবাসীরা সাধারণত নিকটস্থ কর্পোরেট এলাকা যেমন গুলশান, বারিধারা, রামপুরা, আফতাব নাগর এবং বনানী এলাকায় কাজ করে। বাড্ডা থেকে জাতীয় টেলিভিশন কেন্দ্রেরের দূরত্ব ২ কিলোমিটার এবং ১১ মিনিটের ড্রাইভ রয়েছে। আফতাব নগর এর দূরত্ব ৪ কিলোমিটার। এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় যাতায়াতের জন্য এখানকার অধিবাসীরা বাস সেবা ব্যবহার করে থাকে। যারা সরকারি যানবাহন পছন্দ করে তারা বাড্ডা বাস স্টপ এবং লিংক রোড বাস স্টপ ব্যবহার করে থাকে।

বাড্ডার ফ্ল্যাট এবং প্রপার্টিসমূহ

- আমাদের সমাজের মধ্য আয়ের মানুষের জন্য উপযোগী বিভিন্ন ধরণের ফ্ল্যাট আছে এই এলাকায়। বসার ঘর এবং খাবার ঘর সহ ১ বেড থেকে শুরু করে ২ বেড, ৩ বেড, ৪ বেডের ফ্ল্যাট পর্যাপ্ত রয়েছে এই এলাকায়। যারা ফ্ল্যাট খুঁজছেন তাদের জন্য আদর্শ নগর, খিল বাড়ি টেক এবং নূরের চালা এলাকার অধিকাংশ ২ বেডর ফ্ল্যাট গুলো বেশ সাশ্রয়ী হবে। দক্ষিণ বাড্ডা এবং মেরুল বাড্ডায় বিক্রয়ের জন্য বেশ কিছু ফ্লাট গড়ে উঠছে। প্রকৃত পক্ষে প্রপার্টির সুবিধা এবং এলাকার অনুসারে মূল্য বিভিন্ন হয়ে থাকে।

বাড্ডাতে জীবন যাপন এবং কমিউনিটি

- অভিজাত জীবন যাপনের স্বাদ পেতে, অধিবাসীরা ইচ্ছা করলে ছুটির দিনে বেড়াতে যেতে পারে বাড্ডার নিকটস্থ এলাকা গুলশান বনানী এলাকাতে। এছাড়াও বাড্ডার অধিবাসীরা উপভোগ করতে পারে অন্যান্য রেস্টুরেন্ট অথবা রামপুরা এবং বেইলি রোডের পথের ধারে খাবারের দোকান গুলোর খাবার। অধিবাসীদের দৈনন্দিন প্রয়োজন মেটাতে এখানে রয়েছে শপিং মল,সুপার শপ,এটিম বুথ ইত্যাদি।

বাড্ডাতে স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়

- বাড্ডা এলাকার অধিবাসী সন্তানদের সুশিক্ষা নিশ্চিত করতে রয়েছে বাড্ডা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, উই ফাউন্ডেশন স্কুল এবং ন্যাশনাল স্কুল এন্ড কলেজ রয়েছে এই এলাকাতে। এছাড়াও আফতাব নগরের জনপ্রিয় ইউনিভার্সিটি, ইস্ট ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটি যা বাড্ডা থেঁকে কিছু সময়ের দূরত্ব মাত্র।

বাড্ডার হাসপাতাল এবং জরুরি চিকিৎসা সেবা

- আবাসন পছন্দ করার ক্ষেত্রে সেখানকার জরুরি চিকিৎসা ব্যবস্থা সম্পর্কে ভাবা খুব গুরুত্ব পূর্ণ একটা বিষয়। বাড্ডা এলাকার অধিবাসীদের সর্বদা জরুরি স্বাস্থ্যসেবায় রয়েছে জেনারেল হাসপাতাল, এইচ এ এফ জেনারেল হাসপাতাল এবং ডায়াগনস্টিক সেন্টার ছাড়াও অন্যান্য ক্লিনিক।