Category

মাই হোম

Category

Reading Time: 3 minutes গল্প, সিনেমা দেখা, গেমস খেলা কিংবা বন্ধুবান্ধব-পরিবারের সাথে দারুণ কিছু সময় কাটাতে বাসার লিভিং রুমেই জমে আড্ডার আসর। বেশ ফরমাল কোন মিটিং এর জন্য ঘরের ড্রইং রুম যেমন পারফেক্ট। তেমনি গল্প-আড্ডা দেয়ার জন্য বেডরুম মোটেও মানানসই কোন জায়গা নয়। তবে ঘরের কোন রুমটিকে বেছে নিবেন আড্ডার আসর জমাতে? এক্ষেত্রে ড্রইংরুম এবং বেডরুমের মাঝের জায়গা বা লিভিং এরিয়াটি হবে পারফেক্ট। লিভিং রুম ডেকোর এর জন্য তাই আপনি বেছে নিতে পারেন ইউনিক কোন থিম, বিশেষ কোন রঙ, আসবাবের ধরন, ইন্টেরিয়র স্টাইল সহ আপনার পছন্দমতো যেকোনো কিছু।  যেহেতু ঘরের অন্যসব দেয়ালে নিজের ব্যক্তিগত পছন্দের ছোঁয়া রাখতে আমরা সবাই-ই পছন্দ করি। তাই লিভিং রুমের দেয়াল সাজাতেও ইউনিক একটা স্টাইল থাকা প্রয়োজন। এতে করে ঘরের বাকি অংশের ইন্টেরিয়র স্টাইলের সাথে কানেকশন থাকবে। নিজস্ব পছন্দ ধরে রাখতে ইউনিক থিমে লিভিং রুম এরিয়া সাজানো ছাড়াও আর কোন কোন উপায়ে লিভিং রুমের ডেকোরে ভিন্নতা আনা যায়, চলুন আজকের ব্লক থেকে কিছু আইডিয়া নেয়া যাক।  দেয়াল জুড়ে আর্টওয়ার্ক  একটু…

Reading Time: 4 minutes ঘরের ভেতরের পরিবেশটা আরামদায়ক ও সহনীয় করতে পর্দার জুড়ি নেই। পর্দা এখন আর প্রয়োজনীয়তা নয় বরং ঘরের সাজসজ্জার একটি অবিচ্ছেদ্য অংশ হয়ে উঠেছে। তাই এখন ঘর সাজানোর জন্য নানা ধরনের পর্দা সহজেই খুঁজে পাওয়া যায়। এই পর্দাগুলো ঘরের সাজে সৌন্দর্য আনার পাশাপাশি যোগ করতে পারে কার্যকারিতা। একটু বুদ্ধি খাটিয়ে পর্দা বাছাই করলে সৌন্দর্য আর কার্যকারিতা একই সাথে  দুটোই পেতে পারেন। বেডরুম থেকে শুরু করে ড্রয়িংরুম অব্ধি যেকোন ঘরের জন্য পর্দা বাছাই করা যদি একটি কঠিন মনে হয়, তাহলে আজকের ব্লগটি কেবল আপনার জন্যই লেখা। ঘর সাজানোর জন্য ৬টি ভিন্ন ধরনের পর্দা সম্বন্ধে জানতে পড়তে থাকুন! বেডরুমের জন্য প্যানেল পর্দা বাংলাদেশে বেশ জনপ্রিয় এই প্যানেল পর্দা। সাধারণত দুই ধরনের প্যানেল পর্দা থাকে, একক প্যানেল এবং একাধিক প্যানেল। যে সমস্ত জানালায় একটি পর্দা ব্যবহার করা হয় সেগুলোকে একক প্যানেল পর্দা বলা হয়ে থাকে আর একাধিক প্যানেলের ভেতর আপনি ২ থেকে ৩ এর অধিক প্যানেলের পর্দা ব্যবহার করতে পারবেন। নিজের পছন্দ ও জানালার…

Reading Time: 4 minutes ঘর সাজানোর জন্য একেকজনের পছন্দ হয় একেক রকম। কারো পছন্দ থাকে কাঠের কারুকাজ করা আসবাব, কেউ প্রাধান্য দেন মেটাল ফ্রেমের আসবাব। অন্যদিকে কারো জন্য বাঁশ বা বেতের আসবাব থাকে পছন্দের তালিকার শীর্ষে। যারা সাধারণ কিন্তু নান্দনিক ডিজাইনের আসবাব পছন্দ করেন, তারা বেতের সাধারণ বুনন বেছে নিতে পারেন ঘর সাজানোর মাধ্যম হিসেবে। বেতের আসবাবের সৌন্দর্য এতটাই দারুণ হয় যে, পুরো বাসার জন্য না হলেও নির্দিষ্ট কোন রুমের জন্য বা অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায় ঘরের কোন কর্নার বা দেয়াল সাজানোর জন্য বেত বেছে নেন অনেকেই। এর মধ্যে বেতের ফ্রেম করা আয়না, ইনডোর প্ল্যান্টস এর জন্য বেতের ঝুড়ি, বেতের মোড়া, প্ল্যান্ট শেলফ, বেতের দোলনা ইত্যাদি বেশ জনপ্রিয়।  তো চলুন ঘর সাজানোর জন্য বেতের আসবাব ব্যবহারের আরও কিছু উপায় সম্পর্কে জেনে নেয়া যাক আজকের ব্লগ থেকে! ড্রইং রুমের জন্য বেতের সোফা-সেট  ড্রইং রুমের জন্য কাঠের কারুকাজ করা সোফা সেট কিংবা রঙিন ফেব্রিক এর সোফা রুমে নিঃসন্দেহে ভিন্ন লুক নিয়ে আসে। তবে এবার একটু দেশীয়…

Reading Time: 4 minutes নবদম্পতিদের জন্য ঘর সাজানো একটি চমৎকার অভিজ্ঞতা। একটু একটু করে নিজের এক আলাদা পৃথিবী সাজানো। দুজনে মিলে রঙে রঙ মিলিয়ে বাড়ির অন্দর সাজানো। ঘরের লাইট পরিবর্তন করা থেকে শুরু করে আসবাবপত্র প্রতিস্থাপন, আপনি চাইলে যেকোন উপায়ে ঘরটাকে নিজের মনের মত করে সাজাতে পারছেন। কিন্তু, ঘরটাকে একটু আলাদা সাজে সাজাতে আপনাকে অবশ্যই নতুন আঙ্গিকে ভাবতে হবে। করতে হবে আলাদা কিছু, প্রচলিত অনুশীলনের বাইরে চিন্তা করতে হবে এবং সাজের ক্ষেত্রে হতে হবে সৃজনশীল। নবদম্পতিদের জন্য বাসা সাজানোর আইডিয়া হিসেবে এই ৫টি টিপস জেনে নিন।  রঙের ব্যবহার  ঘরের জন্য যেকোন কালার প্যালেট নির্বাচন করা বেশ সহজ। কিন্তু, রঙ নির্বাচনের এই কাজটি আপনাকে করতে হবে বেশ কৌশলে। শুরুতেই আপনাকে রঙের পুরো প্যালেটটি বের করতে হবে না।  যা করতে হবে সেটা হচ্ছে একটি রঙ বাছাই করতে হবে। এরপর, নিজের একটি আলাদা কালার স্কিম তৈরি করে নিন। বদম্পতিদের জন্য বাসা সাজানোর আইডিয়া হিসেবে এটি প্রথম ধাপ।  আপনি রঙ বাছাই করার সময় রঙিন রঙগুলোর কথা আগে ভাবুন।…

Reading Time: 3 minutes বারান্দা আমাদের অনেকেরই পছন্দের একটি জায়গা। আর শহুরে এই জীবনে এই জায়গাটি যেন একটু বেশিই স্বস্তির। তবে প্রায়শই বেশীরভাগ বাড়ির বারান্দায় দেখা যায় কাপড়চোপড় ও অপ্রয়োজনীয় সরঞ্জাম দিয়ে এলোমেলো করে রাখা হয়। এমনটা না করে বরং বারান্দা পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখলে ও সুন্দর করে সাজিয়ে রাখলে বারান্দাটিকে পছন্দের রূপ সহজেই দেয়া যেতে পারে। বারান্দা সাজানোর প্রসঙ্গ আসলে বেশীরভাগ মানুষই ভাবে গাছের কথা। অথচ গাছ ছাড়াও আরও অনেক উপায় রয়েছে যেগুলোর মাধ্যমে বারান্দাকে সাজিয়ে তোলা সম্ভব। বারান্দা সাজানোর পাশাপাশি কীভাবে সেটাকে রিলাক্সিং কর্নার হিসেবে ব্যবহার করা যায় সেটাও অনেকে জানেন না। আজকের লেখায় বারান্দা সাজানোর টিপস থাকছে। বিভিন্ন ধরনের গাছ  যারা বাগান করতে ভালোবাসেন তাদের কাছে এ এক রাজকীয় সুযোগ। ছোট্ট একটা বাগান মনের মত সাজিয়ে নিলেই হয়ে গেল। কিন্তু মনে রাখতে হবে “লেস ইজ মোর”। সবরকম গাছ রেখে ঘিঞ্জি করবেন না। বেশি গাছ রেখে নিজের জন্য ব্যালকনিতে জায়গা বন্ধ করবেন না। পরিমিত গাছ ব্যালকনিকে সুন্দর করবে। আপনি চাইলে গাছের টবগুলো বিভিন্ন…

Reading Time: 3 minutes এখনকার ফ্ল্যাটগুলোতে প্রায়ই দেখা যায় বিভিন্ন ধরনের বাতির ব্যবহার। টাংস্টেন, ফ্লোরোসেন্ট ও এনার্জি বাল্ব এর যুগ পেরিয়ে এখন এলইডি বাল্ব এর জনপ্রিয়তা সর্বত্র। তাই জানতে হবে, কোন ঘরে কতটুকু আলো দরকার এবং সেই আলোর জন্য বাল্ব বা বাতির ধরন কেমন হবে। আলো ইন্টেরিয়র ডেকোরে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখার পাশাপাশি আপনার জীবনকেও নানাভাবে প্রভাবিত করে। প্রাকৃতিক আলোর পাশাপাশি আমরা চাইলেই বিভিন্ন ধরনের কৃত্রিম লাইটের মাধ্যমে ঘরকে আলোকিত করতে পারি। আলোর সাহায্যে ঘরের আকৃতিতেও আসে ভিন্নতা। সঠিকভাবে লাইট ব্যবহার করলে আপনার ছোট্ট এবং অন্ধকার ঘরটিও বড় ও উজ্জ্বল দেখাতে সহায়তা করবে। ফুটে উঠবে বাড়ির আলাদা সৌন্দর্য। বিভিন্ন ঘরের জন্য লাইট নিয়ে লেখা আজকের ব্লগটি। পড়তে থাকুন! শোবার ঘর  সবার কাছেই নিজস্ব এক ভুবন হচ্ছে শোবার ঘর। শোবার ঘরের লাইট হতে হবে প্রয়োজন অনুযায়ী। এই ঘরেই অনেক গুরুত্বপূর্ণ কাজগুলো হয় আবার তেমনি আরাম ও অবসরও কাটে। শোবার ঘরে বিছানার পাশে একটি টেবিলে ল্যাম্প শেড রাখা যেতে পারে আবার একটা ঝুলন্ত লাইটও রাখা যেতে পারে।…

Reading Time: 3 minutes আপনি আসলে ব্যক্তি হিসেবে কেমন তার অনেকটাই বলে দেয়া যায় আপনার রুচি বোধ আর পছন্দ দেখে। এই তত্ত্বটি অনেকটাই ইন্টেরিয়র ডেকোরের ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য। ইন্টেরিয়র ডেকোর সবাইকে যার যার নিজস্ব পছন্দ ও রুচিবোধ প্রকাশের সুযোগ করে দেয়। লিভিং রুমে ফার্নিচার রাখার প্ল্যান থেকে শুরু করে বিভিন্ন রুমের কম্পোজিশন সবকিছুই ইন্টেরিয়র ডেকোরের মাধ্যমে আপনি করতে পারছেন। কিন্তু, ঘরের ইন্টেরিয়র করার ক্ষেত্রেও বেশ কিছু মিথ বা  ভ্রান্ত ধারণার মুখোমুখি হতে হয়। যার ফলে মনের মত করে ঘরের ইন্টেরিয়র করা যায় না। চলতে থাকে  ইন্টেরিয়র ডেকোর মিথ নিয়েই আজকের ব্লগ।  ছোট রুম সাদা রং করা উচিত  ছোট ঘর সাদা রঙ করানোর পেছনে যে ভাবনাটি বেশি থাকে তা হচ্ছে, গাঢ় রঙ ঘরকে আরও সংকুচিত ও ছোট দেখাতে পারে। অথচ, এই ভাবনাটি একদমই ঠিক নয়। গাঢ় রঙ ঘরকে কখনোই ছোট করে না। বরং, আলাদা একটা ডাইমেনশন দেয় যা ঘরকে বড় দেখাতে সহায়তা করে। গাঢ় রঙের পেইন্টগুলো ছোট ঘরে কোজি আমেজ তৈরি করতে পারে। ঘরে আলাদা আমেজ…

Reading Time: 4 minutes বাড়ির যে স্পেসটায় সবচেয়ে বেশি প্রাণ থাকে সেটা হচ্ছে ডাইনিং রুম। কর্মব্যস্ত দিন শেষে রাতের খাবারে যখন আড্ডা জমে ওঠে তখন সারাদিনের ক্লান্তি যেন এক নিমেষেই উড়ে যায়। ডাইনিং রুমটা কেবল খাবার খাওয়ার ঘর না কখনো ডিনার পার্টি কখনো অফিস ডেস্ক আবার কখনো মিটিং রুম। একের ভেতর সবকিছু। অফিসের থেকে পারিবারিক সময়টা এখানেই বেশি কাটানো হয়। গল্প আড্ডায় চায়ের কাপগুলো এখানেই জড়ো হয় বেশি। যে ঘরটা একেক সময় একেক রূপে ধরা দেয় সেই ঘরটার ডেকোরও হওয়া চাই একদমই আলাদা। আর হোম ডেকোরে বরাবরই লাইট গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে। লাইটের সাহায্যে আপনি পেতে পারেন বিভিন্ন রকমের আমেজ। রঙিন আলোর নিচে বসলে উৎসব উৎসব একটা ভাব বিরাজ করবে। সুতরাং ডাইনিং রুমের লাইটিং কেমন হবে তা জানতে হবে। নান্দনিক আলোয় উজ্জ্বলতা যেমন বাড়ে, তেমনি ঘরের সৌন্দর্যও ফুটে ওঠে। সুতরাং, জানা যাক কি কি লাইট ব্যবহার করা যায়। ঝাড়বাতি  ঝাড়বাতি বেছে নেবার আগে আপনাকে জানতে হবে ঝাড়বাতি কত রকমের রয়েছে এবং কোনটা আপনার জন্য…

Reading Time: 4 minutes ডিজাইন করার প্রতি যাদের আকর্ষণ থাকে, তারা রঙ-তুলি দেখলেই যেন ব্যস্ত হয়ে পড়েন দারুণ সব নকশা তৈরি করতে। তবে আর্ট পেপারে ডিজাইন করার পাশাপাশি ঘরের দেয়াল সাজানোর জন্যও আইডিয়া আছে অনেক ধরনের। ঘরের দেয়াল ডিজাইন করার জন্য নিজের কল্পনার রঙে রাঙিয়ে দেয়া কিংবা দেয়াল জুড়ে করা দারুণ সব ডিজাইন যেন শৈল্পিক সত্তার বহিঃপ্রকাশ। ঘরের শূন্য দেয়াল যদি হয় ছবি আঁকার ক্যানভাস, তবে সে দেয়ালে কতশত গল্পই না এঁকে দেয়া যায়। এখানে প্রতিটি গল্পই হবে ভিন্ন। আর্টিস্টিক কোন পেইন্টিং, ওয়ালপেপার ডিজাইন, কালারফুল আর্টস আরও দারুণ সব উপায়ে সাজাতে পারেন ঘরের দেয়াল। তবে চলুন ক্রিয়েটিভ ডিজাইনে ঘরের দেয়াল সাজানোর আইডিয়া সম্পর্কে কিছু তথ্য জেনে নেয়া যাক। ওয়ালপেপার বা ইলিউশন  ঘরের দেয়াল সাজানোর আইডিয়া এর জন্য সবার প্রথমই বলতে হয় ওয়ালপেপার এর কথা। ঘরের বড় দেয়াল সাজানোর টিপস হিসেবে অনেকেই ওয়ালপেপার ডিজাইনকে প্রাধান্য দিয়ে থাকেন। কেননা বিভিন্ন ডিজাইন, প্যাটার্ন এবং রঙের মিশেলে করা চমৎকার একটি ওয়ালপেপার পুরো রুমের সৌন্দর্যই যেন দ্বিগুণ করে দেয়।…

Reading Time: 3 minutes ঘরের ডেকোর করতে গেলে দেখা যায় ঘরের কর্নারগুলো সাজানোই হয় না। পড়ে থাকে শূন্য আর অবহেলায়। এছাড়াও, ঘরের কর্নারগুলো শূন্য রাখলে পুরো ঘরটাকেই যেন শূন্য লাগে। আপনার ঘরের কোনো কর্নার যদি শূন্য থাকে তাহলে আজকের আর্টিকেলে আপনি চমৎকার ৬টি বাজেট ফ্রেন্ডলি কর্নার ডেকোর আইডিয়া পেতে যাচ্ছেন যেগুলো ব্যবহার করে ঘরের আউটলুক বদলে ফেলতে পারবেন। কর্নার ডেকোর খুব সহজ। অ্যাক্সেন্ট ওয়াল থেকে শুরু করে গ্যালারী ওয়াল কিংবা ইনডোর প্ল্যান্ট এই সবকিছুই বাজেট ফ্রেন্ডলি কর্নার ডেকোর আইডিয়া হিসেবে চমৎকার। এগুলো ছাড়াও আর কীভাবে ঘরের কর্নার সাজাতে পারেন তা জানতে পড়ুন আজকের ব্লগ! আয়না ডেকোরের উপকরণ হিসেবে আয়না বেশ জনপ্রিয়। আয়না দিয়ে যেকোন জায়গা সহজেই আকর্ষণীয় করে তোলা যায়। ঘরের চেহারা বা আমেজটা বদলে দিতে আয়না অনেক উপকারী। আপনার বাড়িতে যদি কাঠের আসবাবপত্র থাকে তাহলে কাঠের ফ্রেমের আয়না রাখতে পারেন ঘরের কর্নারে। ঘরটা সহজেই বেশ সুন্দর দেখাবে। কাঠের পাশাপাশি লোহা বা বাঁশের ফ্রেমের আয়নাও আপনার ঘরকে সৃজনশীল রূপ এনে দিতে পারে। বাজেটে শোবার…